নরসিংদীর খবররায়পুরা

রায়পুরায় ২ শিশু সন্তানকে নির্যাতনকারী বাবা কে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ

উদ্ধারকৃত শিশুদের পরম মমতায় কোলে নিয়ে তাদের কথা শুনছেন পুলিশ সুপার আশরাফুল আজীম পিপিএম

বাণী রিপোর্ট : রায়পুরায় ২ শিশু সন্তানকে মারধরকারী পাষণ্ড পিতাকে গ্রেফতার করেছে নরসিংদী ডিবি পুলিশ। শিশু দুটিকে উদ্ধার করে পরম স্নেহের পরশ বুলিয়ে দেন নরসিংদীর পুলিশ সুপার আশরাফুল আজীম পিপিএম। নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলায় দুই শিশু সন্তানকে মারধরের ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে পুলিশ সুপারের নির্দেশে শিশুদের বাবা আল আমিনকে (৩২) আটক করেছে জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)।

পারফিউম ফ্যাক্টরি
বৃহস্পতিবার (৩ মার্চ ২০২২ খ্রিস্টাব্দ) সন্ধ্যায় অভিযান চালিয়ে রায়পুরার শ্রীনিধি রেলওয়ে স্টেশন এলাকা নির্যাতনকারী বাবাকে আটক করে তার কবল থেকে দুই শিশুকে উদ্ধার করা হয়। আটকের পর তাদেরকে নরসিংদী পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে নিয়ে আসা হয়। শিশু মুন্না ও মুন্নী কে পরম স্নেহে নতুন পোশাক প্রদান করেন পুলিশ সুপার।

ঘুম থেকে ডেকে তুলে দুই শিশুকে মারধর ও শিশু দুটিকে ফাঁসি দেওয়ার হুমকির একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। শিশু সন্তানদের মারধর করা ওই ব্যক্তি তাদের বাবা মো. আল আমিন (৩২)। সে রায়পুরা উপজেলার চান্দেরকান্দি ইউনিয়নের শ্রীনিধি গ্রামের মৃত শাহাবুদ্দিন মিয়ার ছেলে।

হাতি মার্কা সাবান হাতি মার্কা সাবান
আল আমিন মাদকাসক্ত। তার স্ত্রী সাকিনা আক্তার (২৫) সৌদি প্রবাসী। শিশু দুটোর নাম মুন্না মিয়া (৬) ও মুন্নী আক্তার (৪)। সাত বছর আগে চান্দেরকান্দি ইউনিয়নের শ্রীনিধি গ্রামের মোজাম্মেল হকের মেয়ে সাকিনা বেগমের সঙ্গে বিয়ে হয় আল আমিনের। সাত মাস আগে শিশু দুটির মা জীবিকার তাগিতে সৌদি আরবে যান। এদিকে আল আমিন নিয়মিত গাঁজা, ইয়াবাসহ নানা মাদক সেবনে আসক্ত হয়ে পড়ে। প্রবাসী স্ত্রী মাদকের টাকা না পাঠালেই দুই শিশুকে মারধর করে স্ত্রীর কাছে ভিডিও পাঠিয়ে টাকা আদায় করেন আল আমিন। সম্প্রতি দুই শিশুকে মারধরের ওই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে পুলিশ তাকে আটক করে। এ ব্যপারে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলে জানা গেছে।

Back to top button