নরসিংদীর খবর

রায়পুরা নিলক্ষার গড ফাদার টেঁটা রাজিব গ্রেফতার

The Daily Narsingdir Bani

পারফিউম ফ্যাক্টরি The Daily Narsingdir Bani

বাণী রিপোর্ট : নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলায় নিলক্ষা ইউনিয়নের টেঁটাযুদ্ধের নায়ক সন্ত্রাসী লাঠিয়াল সরদার, হত্যা বাড়িঘর ভাংচুর অগ্নিসংযোগ ও পুলিশের উপর হামলাসহ চারটি মামলার আসামী নরসিংদী জেলা পরিষদের সদস্য রাজিব আহমেদকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
বুধবার (২ জুন) দুপুরে নরসিংদী ডিবি পুলিশ নরসিংদী শহরের ভেলানগর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করেছে। টেটা রাজিব এর গ্রেফতারের খবর শুনে নিলক্ষা ইউনিয়নের পাড়া মহল্লায় আনন্দ মিছিল বের হয়েছে ।

হাতি মার্কা সাবান হাতি মার্কা সাবান

স্থানীয়রা জানান, নিলক্ষার টেঁটাসন্ত্রাসের গড ফাদার রাজিব আহমেদ এলাকাবাসীর জন্য ছিল মূর্তিমান আতঙ্কে । টেঁটাযুদ্ধ হত্যা চাঁদাবাজি দালাল বাণিজ্য সকল ক্ষেত্রেই মূল হোতা ছিল রাজিব। শুধু তাই নয় টেঁটাযুদ্ধ নিয়ন্ত্রনে আনতে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী এলাকায় পৌঁছালে তাদের উপর হামলা চালায় রাজিব ও তার ভাড়াটে সন্ত্রাসীরা । তার হামলায় তৎকালীন ওসি আজহারুল ইসলাম সহ কয়েকজন পুলিশ সদস্য আহত হয়। টেঁটা যুদ্ধে পৃষ্টপোষ্টকতা করে সে টেঁটা রাজিব খ্যাতি লাভ করে । সম্প্রতি নিলক্ষার দরিগাঁও এলাকায় পুলিশ আসামী ধরতে গেলে তার নির্দেশে তার শিশ্য আলাল মুন্সীর নেতৃত্বে চার পুলিশের উপর হামলা করে আহত করে আসামীকে ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

তার বিরুদ্ধে রায়পুরা থানায় পুলিশের উপর আক্রমণ সহ চারটি মামলা রয়েছে, রায়পুরা থানা মামলা নং ৪০/১১/১৮ – ৯/৫ ২১ – ১৯/০৫/২১ – ১১/৫/২১। এতগুলো মামলা থাকা সত্ত্বেও রাজীব এলাকায় এবং নরসিংদী শহরে বীরদর্পে ঘুরে বেড়িয়েছে।

নিলক্ষ্যার ত্রাস টেঁটা রাজিব এখন তার বাহীনির সদস্যদের কাছে টেঁটা সরবারাহ করে না। টেঁটার পরিবর্তে চরাঞ্চলে এখন আগ্নেয়াস্ত্রের ঝনঝনানি চলছে। রায়পুরার চরাঞ্চলে টেঁটাযুদ্ধ আর হয় না, এখন হয় বন্দুক যুদ্ধ। আর টেঁটার পরিবর্তে রাজিব ব্যবহার করে অস্ত্র ও বোমা।

এরই ধারাবাহিকতায় ২০১৬ সালের ১৪ নভেম্বর সংঘর্ষে আমিরাবাদ গ্রামের শাহজাহান মিয়া (২৭), একই গ্রামের মানিক মিয়া (৪৫), সোনাকান্দী গ্রামের মোমেন মিয়া (২২) ও একই গ্রামের খোকন মিয়া (৩২) দু,পক্ষের সংঘর্ষে নিহত হয়েছিল। তখন পুলিশ অভিযান চালিয়ে কোন টেঁটা উদ্ধার করতে পারেনি। ৭ রাউন্ড গুলিসহ ৯টি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করে ।

এসময় চরাঞ্চলে সর্ব প্রথম অস্ত্র সরবরাহ করে নিলক্ষার ত্রাস, সেভেন স্টার গ্রুপের মুল হোতা, জেলা পরিষদের সদস্য টেঁটা রাজিব। তাকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করলে বহু আগ্নেয়াস্ত্রের তথ্য বেড়িয়ে আসবে বলে মনে করেন নিলক্ষাবাসী।

রাজিব গ্রেফতারের ঘটনায় এলাকাবাসীর মধ্যে স্বস্তি নেমে এসেছে। এলাকবাসী তার সুষ্ঠু বিচার দাবী করেছেন ।

Back to top button