নরসিংদীর খবর

নরসিংদীর পলাশে যৌতুকের বলি হলেন নববধূ

The Daily Narsingdir Bani

পারফিউম ফ্যাক্টরি The Daily Narsingdir Bani

বাণী রিপোর্ট : মেহেদীর রং না শুকাতেই নরসিংদীর পলাশে যৌতুকের বলি হলেন নববধূ শিল্পী রানী দাস (১৯)। সোমবার (৫ এপ্রিল) উপজেলার জিনারদী গ্রামে যৌতুকের জন্য নববধূকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ঘাতক স্বামী ও শ্বশুরকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

হাতি মার্কা সাবান হাতি মার্কা সাবান

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, চলতি বছরের ২১ ফেব্রুয়ারিতে বি-বাড়ীয়া জেলার নবীনগর উপজেলার প্রদীপ চন্দ্র দাসের মেয়ে শিল্পী রানী দাসের সঙ্গে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয় নরসিংদীর পলাশ উপজেলার জিনারদী গ্রামের বিমল দাসের ছেলে শ্যামল দাসের।

বিয়ের সময় ছেলের পরিবারকে এক লাখ ১০ হাজার টাকা ও এক ভরি স্বর্ণালংকার যৌতুক দেওয়ার কথা হয়। বিয়ের আগের দিন ছেলে পক্ষের হাতে এক লাখ টাকা ও আধাভরি স্বর্ণালংকার তুলে দেয় মেয়ে পক্ষ। বাকি আধাভরি স্বর্ণ ও ১০ হাজার টাকা দিতে না পারায় বিয়ের সাপ্তাহখানেক পর থেকেই নববধূ শিল্পী রানীর ওপর শুরু হয় অমানুষিক নির্যাতন।

নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে নববধূ শিল্পী রানী একাধিকবার ফোন করে মা-বাবাকে দাবিকৃত যৌতুকের বাকি টাকা ও স্বর্ণালংকার দিতে বলে।

কিন্তু মেয়ের পরিবার কিছুতেই যৌতুকের বাকি টাকা ও স্বর্ণালংকার দিতে পারছিল না। তাই তারা বিনয়ের সঙ্গে ছেলে পরিবারের কাছে ক্ষমা চেয়ে ৬ মাসের সময় চেয়েছিল। কিন্তু পাষন্ড স্বামী শ্যামল ও তার পরিবারের সদস্যরা যৌতুকের বাকি টাকা ও স্বর্ণালংকার না পেয়ে অমানবিক নির্যাতন এর মাত্রা বাড়িয়ে দেয়। পরে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে নববধূ শিল্পী রানী দাসকে। এভাবেই এই অমানবিক ঘটনাটির বর্ণনা দিচ্ছিল নববধূ শিল্পী রানীর বড় ভাই শুভ চন্দ্র দাস।

সোমবার বিকালে পলাশ থানা পুলিশ নববধূ শিল্পী রানীর নিথর দেহটি স্বামীর বাড়ি থেকে উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেন।

এই ঘটনায় সোমবার রাতে নববধূর ভাই শুভ চন্দ্র দাস বাদী হয়ে স্বামী শ্যামল ও শশুর বিমলকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার পর থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে মঙ্গলবার (৬এপ্রিল) সকালে অভিযুক্ত শ্যামল ও বিমলকে গ্রেপ্তার করে।

এ ব্যাপারে পলাশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মো. নাসির উদ্দীন জানান, ‘নিহত শিল্পী রানীর শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় থানায় একটি হত্যা মামলা রুজু হয়েছে। অভিযুক্ত স্বামী শ্যামল ও শশুর বিমলকে গ্রেপ্তার করে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। তবে নিহতের ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে ঘটনার মূলরহস্য উদ্ঘাটন করা যাবে।’

Back to top button