নরসিংদী সদরনরসিংদীর খবর

 নরসিংদীর করিমপুরের ত্রাস অস্ত্রধারী শামীম বাহিনী, অত্যাচারে অতিষ্ট এলাকাবাসী

The Daily Narsingdir Bani
শামীম বাহিনীর প্রধান শামীম

বাণী রিপোর্ট : নরসিংদী সদর উপজেলার চরাঞ্চলীয় ইউনিয়ন করিমপুরের ত্রাস অস্ত্রধারী শামিম বাহিনী। করিমপুর এলাকায় সাধারন মানুষকে ভয়ভীতি প্রদর্শন,  চাঁদাবাজী, মাদক ব্যবসা, চুরি ও ইভটিজিং সহ নানা অপকর্মে লিপ্ত শামিম ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর সদস্যরা। প্রকাশ্যে আগ্নেয়াস্ত্র প্রদর্শন করে হুমকি প্রদান করায় তার বাহিনীর ভয়ে এলাকার মানুষ প্রতিবাদ তো দূরের কথা আইনের আশ্রয় নিতে সাহস পায়না। এমন অভিযোগ এলাকার সাধারণ মানুষের।

পারফিউম ফ্যাক্টরি The Daily Narsingdir Bani

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এলাকার নিরীহ সাধারণ মানুষ জানান, শামীম সরকার স্থানীয় বিএনপি নেতার পুত্র । বর্তমান সরকার ক্ষমতায় এলে সে তার পূর্বের অপকর্ম ঢাকতে বিদেশে পাড়ি জমান। কয়েক বছর বিদেশ থাকার পর এলাকায় ফিরে এসে গড়ে তুলেন সন্ত্রাসী বাহিনী।

The Daily Narsingdir Bani

সম্প্রতি স্থানীয় মালম সরকার এর ছেলে রনি মিয়া তাদের পারিবারিক প্রয়োজনে প্রায় ৮ শতাংশ জায়গা বিক্রি করে। খবর পেয়ে শামিম ও তার বাহিনীর সদস্য মিন্টু মিয়া, রনির পরিবারের নিকট মোটা অংকের টাকা চাঁদা দাবী করে। দাবীকৃত চাঁদা না দেয়ায় শামীম তার বাহিনীর সদস্যরা গত ১২মার্চ রনির বাড়ীতে গিয়ে অকথ্য ভাষায় গালাগাল করা সহ প্রকাশ্যে অস্ত্র উচিয়ে রনিকে প্রাণ নাশের হুমকি দেয়। হুমকীর মুখে ও প্রাণ নাশের আশংকায় রনি পরিবারের সদস্যরা নিরাপত্তহীনতায় দিন যাপন করছে । হুমকীর প্রেক্ষিতে ১৩মার্চ রনি মিয়া নরসিংদী সদর মডেল থানায় শামীম তার বাহিনীর সদস্যদের বিরুদ্ধে সাধারণ ডাইরী করেন।  এ ব্যপারে রনি মিয়া জানান, সাধারণ ডাইরী করার খবর পেয়ে শামীম আমাকে যেখানে পাবে সেখানেই মেরে ফেলা হবে বলে এলাকায় প্রকাশ্যে হুমকী দিয়ে বেড়াচ্ছে।

হাতি মার্কা সাবান হাতি মার্কা সাবান

সম্প্রতি শামীম ও তার বাহিনীর সদস্যরা গভীর রাতে অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে করিমপুর বাজারের একটি দোকানের মালামাল চুরি করতে গেলে বাজারের পাহাড়াদার লাউয়া মিয়া দেখে ফেলে প্রতিবাদ করে। পরে শামীম পাহাড়াদারের গলায় আগ্নেয়াস্ত্র ঠেকিয়ে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে এবং তার বাহিনী সদস্যরা তাকে হকিস্টিক দিয়ে পিটিয়ে গুরুত্বর জখম করে বাজার ঘাটে ফেলে রেখে চলে যায়।

শামীম ও তার বাহিনী স্থানীয় বাচ্চু মিয়ার গরুর ফার্ম থেকে ফ্যান চুরি করে এবং তার বোনের বিল্ডিং থেকে দশ হাজার টাকা মূল্যমানের পানির মোটর চুরি করে নিয়ে যায়। মালামাল নিয়ে যাওয়ার সময় বাড়ীর লোকজন তাদের অপকর্ম দেখলেও প্রাণের ভয়ে মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছেনা।

মাদক বিক্রি ও মাদক সেবন শামীম বাহিনীর নিত্যদিনের কাজ। প্রতি রাতেই প্রকাশ্যে সে তার বাহিনীর সদস্যদের নিয়ে মাদক সেবন ও বিক্রি করে থাকে এবং এলাকায় চাঁদাবাজি করে বেড়ায়।

দিনের বেলায় শামীম তার বাহিনীর সদস্যদের নিয়ে স্থানীয় ছফুরা খাতুন গার্লস হাইস্কুলে পাশে অবস্থান করে থাকে। নানা প্রয়োজনে স্কুলে আসা নবম ও দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের শামিম বাহিনী ইভটিজিং করে থাকে। ভয়ে শিক্ষার্থীরা অত্যাচার নিরবে সহ্য করে।

এসব নানা অপরাধ এলাকায় নির্বিঘ্নে করে বেড়াচ্ছে শামিম ও তার বাহিনীর সদস্যরা। অস্ত্রধারী শামিম বাহিনীর হাতে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার ভয়ে সাধারণ মানুষ অপকর্মের প্রতিবাদ এবং আইনের আশ্রয় নিতে সাহস পাচ্ছেনা। শামীম বাহিনীর অত্যাচার হতে রেহাই পেতে প্রশাসন ও আইন প্রয়োগকারী সংস্থার হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকাবাসী।

নরসিংদী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ জানান, শামীম এর বিরুদ্ধে একটি সাধারণ ডাইরী হয়েছে, এ ব্যপারে তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button