পারফিউম ফ্যাক্টরী এলকোহল মুক্ত সুগন্ধির দুনিয়ায় পারফিউম ফ্যাক্টরি আপনার জন্য একটি " ব্লাইন্ড বাই" প্লাটফর্ম "পারফিউম ফ্যাক্টরি"।
নরসিংদীর খবর

নরসিংদীতে “বই পড়া আন্দোলন বাংলাদেশ” এর ব্যতিক্রমধর্মী মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

The Daily Narsingdir Bani

বাণী রিপোর্ট : সর্বত্র বই পড়ার সংস্কৃতি গড়ে তোলার লক্ষ্যে নরসিংদীতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে । বাংলাদেশের ইতিহাসে এ ধরণের উদ্যোগ এটাই প্রথম। বর্ণাঢ্য ও ব্যতিক্রমধর্মী এ আয়োজন করে ‘বই পড়া আন্দোলন বাংলাদেশ’ নামের সংগঠন। মানববন্ধনে বই পড়ার সুযোগ সব জায়গায় সৃষ্টির লক্ষে সরকারের কাছে বিভিন্ন দাবি জানানো হয়।

আজ মঙ্গলবার (১৯ ডিসেম্বর) সকাল ১০. ৩০ টায় নরসিংদী প্রেসক্লাব এর সামনে বই পড়া আন্দোলন বাংলাদেশ এর সভাপতি ড. মো. মোয়াজ্জেম হোসেন এর নেতৃত্বে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

সভাপতি তার বক্তব্যে বই পড়া আন্দোলন বাংলাদেশ এর লক্ষ ও উদ্দেশ্য তুলে ধরেন। তিনি বলেন, সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় এর প্রতিমন্ত্রী, সচিব ও জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্রের পরিচালকসহ ১০০টি প্রতিষ্ঠানকে ইতোমধ্যে এই বিষয়ে চিঠি দিয়েছি।

প্রধান অতিথি প্রফেসর ফরিদ উদ্দিন মুরাদ বলেন, ‘ডক্টর মোয়াজ্জেম হোসেন সবসময়ই ব্যতিক্রমধর্মী ও সৃজনশীল কাজ করে থাকেন। বই পড়ার জন্য মানববন্ধন এটি তার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। এ ধরনের মানববন্ধন বাংলাদেশে বিরল। বই পড়ার জন্য এমন উদ্যোগ পূর্বে আর কেউ নেননি। ড. মো. মোয়াজ্জেম হোসেন ই প্রথম উদ্যোগটি নিয়েছেন। বিশ্বের কোথাও এ ধরনের মানববন্ধন হয়েছে কিনা আমাদের জানা নেই।’

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিতি ছিলেন- জাতীয় মহিলা সংস্থা নরসিংদীর সভাপতি তাহমিনা আক্তার লাইলি, বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয় এর সহকারী অধ্যাপক ড. এএম আজমল মোর্শেদ, নরসিংদী প্রেসিডেন্সি কলেজের অধ্যক্ষ আহমাদুর রহমান, সাবেক ব্যাংক কর্মকর্তা বীর মুক্তিযোদ্ধা লস্কর আলী মিয়া, ভাইস প্রেসিডেন্ট মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিল নরসিংদী এর বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আরমান, বাঘাবো ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা একে ফজলুল হক, সাবেক জেলা শিক্ষা অফিসার একেএম শাহজাহান, জাগরণী পাঠাগারের প্রতিষ্ঠাতা ডা. অছিউদ্দিন আহম্মদ, চেতনা বিকাশ রহিমা হক মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ ড. শফিউল আজম কাঞ্চন, ডা. নাজমুল আলম ভূইয়া কাউছার, বেলাব সরকারি হোসেন আলী কলেজের প্রভাষক শফিকুল ইসলাম বকুল, কবি রহিমা মফিজ, ইউনাইটেড কলেজের অধ্যক্ষ হাসিবুর রহমান অনিক, প্রেসিডেন্সি কলেজের প্রভাষক মু. শাহাদাত হুসাইন, মো. এনামুল হক, মোস্তাফিজুর রহমান, সৈদয় মাহবুব তামিম, জামাল উল্লাহ, আসাদুজ্জামান, হেদায়েত উল্লাহ, সাদিকুর রহমান মাহফুজ, মো. মহসিন, বলাই চাঁদ বর্মন, সাদ্দাম হোসেন, আব্দুল হামিদ রাজু, মু. জসিম উদ্দিন, জয়নগর ডিগ্রী কলেজের লাইব্রেরিয়ান মুজীবুর রহমান, সমাজ সেবক আব্দুল হালিম, কবি নুরুল ইসলাম, প্রভাষক আব্দুস ছাত্তার, আব্দুল্লাহ আল মামুন, ব্রাহ্মন্দী কেকেএম উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক মো. সাইফুল ইসলাম, চরসুবুদ্ধি ফাযিল মাদ্রাসা প্রভাষক হোসনি মোবারক, সংগঠক ও ব্যবসায়ী রোকসানা আক্তার, নরসিংদী আদর্শ একাডেমির ভাইস প্রিন্সিপাল তাওহিদ তারেক, পাঠক বন্ধু গণপাঠাগারের প্রতিষ্ঠাতা কাজী হুমায়ুন কবিরসহ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে অন্যান্য বক্তারা বলেন, এ মানববন্ধনে করোনা কে উপেক্ষা করে শত শত মানুষ অংশগ্রহণ করেন। স্বত:স্ফুর্ত উপস্থিতি প্রমাণ করে মানুষ এখনো বই পড়া পছন্দ করে। বর্তমানে ফেসবুক তরুণ সমাজকে গ্রাস করছে। বই পড়া আন্দোলন পারে তরুণ সমাজকে রক্ষা করতে। বই কালজয়ী। আজকের এ মানববন্ধন নরসিংদীর ইতিহাসে তথা সমগ্র বাংলাদেশে স্মরণীয় হয়ে থাকবে। যারা বইকে ভালবাসে যারা বই পড়তে চায় তারা এ মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করে।

এ মানববন্ধনের উদ্যোক্তা বই পড়া আন্দোলন বাংলাদেশ ও নরসিংদী প্রেসিডেন্সি কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ড. মো. মোয়াজ্জেম হোসেন তার বক্তব্যে বলেন, ‘বই পড়ার একটি পরিবেশ সৃষ্টি করা সময়ের দাবি।’ আজকের অনুষ্ঠানের দাবিগুলো ছিলো- ‘এনজিও ব্যাংক, হাসপাতাল, সকল রাজনৈতিক কার্যালয়, সকল সরকারি-বেসরকারি, স্বায়ত্তশাসিত কার্যালয়ে বই রাখা ও বই পড়ার ব্যবস্থা করা। সকল বেসরকারি গণগ্রন্থাগারে সরকারি বেতন ভুক্ত লাইব্রেরিয়ান দেওয়া, প্রত্যেক উপজেলায় সরকারি গণগ্রন্থাগার স্থাপন করা, সামাজিক অনুষ্ঠানে উপহার হিসেবে বইয়ের দেওয়ার প্রচলন করা, সর্বত্র বই পড়ার সংস্কৃতি গড়ে তোলা, শৈশব থেকে পাঠ্য বইয়ের পাশাপাশি ভালো ভালো বই পড়া, এনজিও ক্লাব সমিতি সংস্থার অনুমোদনের ক্ষেত্রে বই রাখা বাধ্যতামূলক করা, সুপার স্টোরে বই বিক্রির ব্যবস্থা করা।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button