নরসিংদীর খবরপলাশ

পলাশে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার বিষপানে আত্মহত্যা

The Daily Narsingdir Baniবাণী রিপোর্ট : নরসিংদীর পলাশ উপজেলায় প্রেম করে বিয়ে না করায় প্রেমিকের বাড়িতে বিষপান করে জনি বেগম (২১) নামে এক তরুণী আত্মহত্যা করেছে। এ ঘটনায় শনিবার (১৬ জানুয়ারি) সকালে পলাশ থানায় নিহত তরুণীর বাবা বাদী হয়ে আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে প্রেমিকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

পারফিউম ফ্যাক্টরি The Daily Narsingdir Bani

গত বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) সকালে উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে তরুণীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। জানা গেছে, নিহত জনি বেগম গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলার নারগানা গ্রামের করিম মোড়লের মেয়ে। অপরদিকে কথিত প্রেমিক মুঞ্জুর হোসেন ঘোড়াশাল পৌর এলাকার ধনারটেক গ্রামের ফজলুল হকের ছেলে। পুলিশ ও নিহতের পরিবার জানায়, জনি ও মুঞ্জুর পলাশের স্যামরি ডাইং কারখানায় শ্রমিকের কাজ করতো। কাজের সুবাধে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। পরে তাদের সম্পর্কটি গভীরে পৌঁছালে জনি মুঞ্জুরকে বিয়ের জন্য চাপ দিতে থাকে।

হাতি মার্কা সাবান হাতি মার্কা সাবান

একপর্যায়ে বিয়ে না করলে গত বুধবার (১৩ জানুয়ারী) জনি বিয়ের দাবিতে প্রেমিক মুঞ্জুরের বাড়িতে গিয়ে উঠে। সেখানে মুঞ্জুর হোসেন বিয়ের দাবি প্রত্যাখ্যান ও তাদের মাঝে তর্কবিতর্কের একপর্যায়ে জনি বেগম বিষপানে আত্মহত্যা করে। বিষপানের পর ওই তরুণীকে চিকিৎসার কথা বলে হাসপাতালে রেখে পালিয়ে যায় কথিত প্রেমিক মুঞ্জুর হোসেন। পলাশ থানার ওসি শেখ মো. নাসির উদ্দিন জানান, কথিত প্রেমিক মরদেহটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রেখে পালিয়ে যায়। পরে মরদেহটির পরিচয় নিশ্চিত করে মামলা নেওয়া হয়। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত মুঞ্জুর হোসেন পলাতক রয়েছে। তাকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানান পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button