নরসিংদীর খবররায়পুরা

ধর্ষণের অভিযুক্ত রায়পুরা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাকিল বহিস্কার

The Daily Narsingdir Bani

মোঃ আকিব রাসেলঃনরসিংদীর রায়পুরায় দশম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে ডেকে নিয়ে ধর্ষণের ঘটনায় দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে রায়পুরা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতির পদ থেকে আসাদুল হক চৌধুরী শাকিলকে বহিষ্কার করেছে জেলা ছাত্রলীগ।

অপরদিকে ধর্ষণের ঘটনার ২২ দিন পেরিয়ে গেলেও মামলার প্রধান আসামী রায়পুরা উপজেলা ছাত্রলীগের বহিস্কৃত সভাপতি আসাদুল হক চৌধুরী শাকিলকে এখনো গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। মামলার প্রধান আসামী গ্রেফতার না হওয়ায় সঠিক বিচার পাওয়া নিয়ে শংকায় ভুক্তভোগীর পরিবার। তবে আসামীকে ধরতে গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত আছে বলে জানিয়েছেন রায়পুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা।

অভিযুক্ত ছাত্রলীগ সভাপতি আসাদুল হক চৌধুরী শাকিল রায়পুরা উপজেলার পাড়াতলী কলিম উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক ও উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতা আমিনুল হক চৌধুরীর ছেলে।

উল্লেখ্য, ওই স্কুলছাত্রীর সাথে ছাত্রলীগ নেতা শাকিলের ৬ মাস ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছে। বিয়ে করার কথা বলে গত ১৫ অক্টোবর সন্ধ্যায় ওই ছাত্রীকে ডেকে রায়পুরা পৌর এলাকার শ্রীরামপুরস্থ সরকারি রাজু অডিটরিয়ামে নিয়ে যায় শাকিল। কিন্তু বিয়ে না হওয়ায় কিছুক্ষণ পর ওই ছাত্রীকে তার বাড়ি পাঠিয়ে দেয়া হয়। পরবর্তীতে ২২ অক্টোবর রাত ১০টার দিকে বিয়ে করার কথা বলে আবারও বাড়ি থেকে ওই অডিটরিয়ামে ডেকে আনা হয় ছাত্রীটিকে। পরে সেখানে অডিটরিয়ামের কেয়ারটেকার সুমনের সহায়তায় ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করে ছাত্রলীগ নেতা শাকিল।

এসময় স্থানীয়রা ঘটনা টের পেয়ে অডিটরিয়াম ঘেরাও করলে শাকিল ওই ছাত্রীকে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে রাতেই পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও নির্যাতিতা ছাত্রীকে উদ্ধার করে। শুক্রবার দুপুরে নির্যাতিতা ওই ছাত্রীকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালে পাঠিয়েছে পুলিশ। ২৩ অক্টোবর দুপুরে নির্যাতিতা ওই ছাত্রী বাদী হয়ে রায়পুরা থানায় মামলাটি দায়ের করেন। এ ঘটনায় অডিটরিয়ামের কেয়ারটেকার সুমনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সংগঠন থেকে বহিস্কারের বিষয়ে নরসিদী জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি হাসিবুল হাসান মিন্টু বলেন, দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অপরাধে রায়পুরা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আসাদুল হক চৌধুরী শাকিলকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় কমটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সাথে সমন্বয় করে একজনকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি পদে দায়িত্ব দেওয়া হবে।

এ বিষয়ে রায়পুরা উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম তুহিন বলেন, সভাপতি শাকিলকে জেলা ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দের সিদ্বান্ত অনুযায়ী চিঠি ইস্যু করে তাকে সংগঠন থেকে বহিস্কার করা হয়েছে। জেলা ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ রায়পুরায় এসে সংবাদ সম্মেলন করে বহিস্কার আদেশ ঘোষণা দিবেন।

নির্যাতনের স্বীকার স্কুল ছাত্রীর বাবা নুরুল হক বলেন, এখনো আসামী শাকিলকে ধরতে পারেনি পুলিশ। বিচার নিয়ে শংকায় আছি।

রায়পুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মহসিনুল কাদির বলেন, এ ঘটনায় অডিটরিয়ামের কেয়ারটেকার সুমনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মামলার প্রধান আসামী ছাত্রলীগ নেতা শাকিলকে ধরতে গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত আছে।

Perfume Factory

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker