সারাদেশ

মাদ্রাসার শিক্ষক দ্বারা ১৫ দিন যাবত বলাৎকারের শিকার এক ছাত্র

শেয়ার করুনঃ

The Daily Narsingdir Bani

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে ১৫ দিন ধরে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে এক মাদরাসাছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগে শহিদুল্লাহ মিয়া (৪৫) নামে এক শিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রবিবার (৪ অক্টোবর) রাতে সিদ্ধিরগঞ্জের মিজমিজি পাইনাদী নতুন মহল্লা এলাকার মারকাযুল কোরআন কওমি মাদরাসা ও লিল্লাহ বোর্ডিং থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগেও এই শিক্ষক এক ছাত্রকে বলাৎকার করেছিল। যা ধামাচাপা দেয় মাদরাসার প্রধান।

বলাৎকারের শিকার ১১ বছরের মাদরাসাছাত্রের পরিবারের অভিযোগ, গত ১৫ দিন ধরে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে মাদরাসার শিক্ষক শহিদুল্লাহ তাকে বলাৎকার করে আসছে। ব্যথা কমাতে ছাত্রটিকে ব্যথানাশক ওষুধও সেবন করায় ওই শিক্ষক। ছাত্রটি মাদরাসা থেকে বাসায় চলে যেতে চাইলে তাকে ভয়-ভীতি দেখানো হয়। রবিবার সুযোগ পেয়ে ছাত্রটি মাদরাসা থেকে পালিয়ে বাসায় গিয়ে অভিভাবকদের বিষয়টি জানায়। পরে ছত্রটির খালা থানায় গিয়ে অভিযোগ করলে পুলিশ ওই শিক্ষককে গ্রেপ্তার করে।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি কামরুল ফারুক জানান, অভিযুক্ত মাদরাসাশিক্ষককে আটক করার পর তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

সূত্র-কালের কন্ঠ
https://www.kalerkantho.com/online/country-news/2020/10/05/962511

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button