সারাদেশ

ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ

শেয়ার করুনঃ

The Daily Narsingdir Bani

মিজানুর রহমানঃ ফরিদপুরের নগরকান্দায় ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যুুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, উপজেলার পুরাপাড়া ইউনিয়নের গোয়ালদী গ্রামের সৌদি প্রবাসী টিটুল খানের স্ত্রী সুফিয়া বেগম (৪২) বৃহস্পতিবার সকালে অসুস্থ অবস্থায় নগরকান্দা উপজেলা হাসপাতালে নেওয়া হয়। এসময় রোগী অচেতন অবস্থায় ছিল। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎক বিষ পান করেছে ভেবে রোগীর পেট ওয়াশ করে। পরে রোগীকে ওয়ার্ডে নিয়ে ভর্তি করা হয়। পরে আনুমানিক দুই ঘন্টা পর রোগী মারা যায়।

সুফিয়া বেগমের ছেলে নবম শ্রেণীর ছাত্র রবিউল ইসলাম জানায় তার মা উচ্চ রক্তচাপ জনিত রোগে ভুগছিলেন। বুধবার রাতে তার প্রেসার বেড়ে যায়।বৃহস্পতিবার ফজরের নামাজ পড়ার পর অসুস্থ হয়ে পড়লে হাসপাতালে নিয়ে যায়। রবিউল ইসলাম আরও বলেন, আমি বারবার বলছি আমার মা বিষ খায়নি। আমার কথা বিশ্বাস না করে ডাক্তার আমার মাকে ওয়াশ করে মেরে ফেলেছে।

সুফিয়ার দেবর আরোব আলী বলেন, আমার ভাবী কোন বিষ পান করেনি। সে উচ্চ রক্তচাপ রোগে ভুগছিলেন। বৃহস্পতিবার সকালে অসুস্থ ভাবীকে নিয়ে নগরকান্দা হাসপাতালে যাই। হাসপাতালে ঢুকতে ভাবী পানি পান করতে চায়। আমি পানি নিয়ে ফিরে দেখি আমার ভাবীর মুখে পাইপ দিয়ে পেট ওয়াশ করছে। আমি চিল্লাচিল্লি করলে ভাবীকে ওয়ার্ডে ভর্তি করে। কিছুক্ষণ পর ভাবী মারা যায়।

কর্তব্যরত চিকিৎসক পলাশ সাহা বলেন, রোগী হাসপাতালে আসার পর রোগী বিষ পান করেছে বলে রোগী লোকজন জানায়। সে মতে আমি চিকিৎসা করি। পরে রোগীর অবস্থা অবনতি হওয়ার তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রিফার্ড করি।

হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ফরহাদ হোসেন বলেন, এ বিষয়ে কোন লিখিত অভিযোগ আমরা পাইনি।

থানা অফিসার ইনচার্জ শেখ মোঃ সোহেল রানা বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছি। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পেয়ে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button