বিনোদন

পেশাগত দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি সৃজনশীল প্রতিভার অধিকারী ওসি মহসিনুল কাদির

শেয়ার করুনঃ

পেশাগত দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি প্রতিভার অধিকারী ওসি মহসিনুল কাদিরমোঃ আকিব রাসেল : পেশায় একজন পুলিশ অফিসার। নরসিংদীর রায়পুরা থানার ওসি মহসিনুল কাদির। সকল শ্রেণী পেশার মানুষের সাথে যোগাযোগ রেখে থানা এলাকার আইন শৃংখলা রক্ষা করে চলা অনেক কঠিন কাজ। এ জন্য তাকে কাজ করতে হয় দিন রাত। তটস্ত থাকতে হয় সর্বক্ষণ, কোথায় কী হয়ে যায়। মানুষের জানমাল রক্ষায় সবসময় কান পেতে রাখেন। রায়পুরাবাসী, স্থানীয় প্রশাসন ও রাজনৈতিক ব্যক্তিদের কাছে তিনি খোলা মনের মানুষ।

দেশের করোনা পরিস্থিতিতে জণগনকে সুস্থ রাখতে নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন তিনি প্রশাসনের পাশে থেকে। করোনা আক্রান্তদের বাড়ী লকডাউন করা, তাদের বাড়ীতে খাবার ও ফলমূল পৌঁছানো এমনকি থানা এলাকাতে করোনায় অভাবগ্রস্ত মানুষদের খুজে বের করে তাদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ এসব মানবিক কাজগুলো করে যাচ্ছেন পেশার রোটিন ওয়ার্কের উর্ধ্বে উঠে।

এসব দায়িত্ব পালনের পরও তিনি যেন অবসর থাকতে পারেন না। পেশার পাশাপাশি বিরল প্রতিভার অধিকারী প্রচার বিমুখ মানুষ, ওসি মহসিনুল কাদির। নিজেকে প্রকাশ করতে চান না। না চাইলেও প্রতিভা চাপা রাখা যায়না। তিনি সুযোগ পেলেই দেশবাসীর বিনোদনের চিন্তা করেন নীরবে নিভৃতে। আর এসব চিন্তা করতে পারেন যারা সংস্কৃতি মনা উদার মনের মানুষ। মন উজার করে মানুষের জন্য রচনা করে যাচ্ছেন গান, কবিতা। দেশ বিদেশের প্রতিভাময়ী শিল্পিদের কণ্ঠে তার লিখা ও সুর করা গান শোভা পায়।

যতটুকু জানা গেছে পেশাগত দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি প্রায় দুই বছর যাবত তিনি যেটুকু অবসর সময় পান, সে সময়ই মনোযোগ দেন গান লিখা, সুর করা কবিতা লিখার কাজে। এ পর্যন্ত তিনি প্রায় অর্ধশতাধিক গান রচনা করেছেন। তার গানের জগতের ওস্তাদ বাংলাদেশ বেতারের প্রখ্যাত সঙ্গীত পরিচালক প্রয়াত জনাব আতিকুর রহমান। গীতিকার ও সুরকার ওসি মহসিনুল কাদির এর “ডাকে মহুয়া বনে” গানটি ছিল আতিকুর রহমান পরিচালিত জীবনের শেষ সংগীত। আর এ জন্য ওস্তাদকে স্মরনীয় করে রাখতে মহসিনুল কাদির এ গানটি তার নামে উৎসর্গ করেন। গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন প্রতিভাময় কণ্ঠ শিল্পী পল্লবী সরকার মালতী।

গানটি শুনতে লিংকে ক্লিক করুনঃhttps://www.youtube.com/watch?v=ZGmBGY3MJ9c

বেশ কিছু গানে ইতোমধ্যে দেশের বিখ্যাত শিল্পীগণ কণ্ঠ দিয়েছেন। গানগুলো শ্রোতাদের মন জয় করেছে। ভারতের বিখ্যাত শিল্পীদের কাছেও গীতিকার ও সুরকার মহসিনুল কাদিরের গান সমাদৃত হয়েছে। বিখ্যাত শিল্পীদের কণ্ঠ দেয়া গানগুলো অচিরে মানুষের বিনোদনকালে সঙ্গ দিবে এমটিই মনে করছেন গান পিয়াসী তার শ্রোতা ভক্তগণ।

শ্রোতা ভক্তদের মতে এমন প্রতিভার অধিকারী মানুষকে সংশ্লিষ্ট বিভাগ উৎসাহিত করলে একদিন জাতি পেতে পারে একজন বিখ্যাত গীতিকার ও সুরকার। রায়পুরাবাসী ওসি মহসিনুল কাদির কে সংস্কৃতিমনা হিসেবে উদার মনের মানুষ হিসেবে গ্রহন করেছে। বিগত যে কোন সময়ের তুলনায় এখন রায়পুরার আইন শৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button