নরসিংদীর খবর

করোনা সন্দেহে অজ্ঞান অবস্থায় তরুণীকে বাস থেকে রাস্তায় ফেলে রেখে যায়

চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ করে বাড়ী পৌঁছে দেয় মানবিক নরসিংদী জেলা পুলিশ

শেয়ার করুনঃ

The Daily Narsingdir Baniবাণী রিপোর্ট : করোনা পরিস্থিতিতে মানবিকতাবোধ হারিয়ে অনেকটা আত্মকেন্দ্রিক হয়ে উঠেছে মানুষ। তাই যে কেউ রোগাক্রান্ত হলেই তাকে করোনা আক্রান্ত হিসেবে সন্দেহ করা হচ্ছে। মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিয়ে সরে যাচ্ছে । এ অবস্থায় এগিয়ে এসে অসুস্থ রোগীকে সুস্থ্য করে বাড়ীতে পৌঁছে দিয়ে মানবিকতার উজ্জল দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছে পুলিশ।

আরজিনা আক্তার নামে এক কিশোরী তার বাড়ী যাওয়ার পথে বাসে অজ্ঞান হয়ে পড়লে লোকচক্ষুর আড়ালে বাসের লোকজন তাকে নরসিংদীর মাধবদী বাসস্ট্যান্ডে বাস থেকে নামিয়ে রাস্তার পাশে ফেলে রেখে যায়। পরবর্তীতে মাধবদী থানা পুলিশ তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা করে এবং সে সুস্থ হয়ে উঠলে তাকে বাড়ী পৌঁছে দেয় মাধবদী থানা পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, শনিবার (২০ জুন) মাধবদী বাসস্ট্যান্ড এলাকায় রাস্তার পাশে অনুমান ১৭/১৮ বছরের এক তরুণীকে অজ্ঞান অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে জনৈক এক ব্যক্তি পুলিশের জরুরি সেবা সার্ভিস ৯৯৯ লাইনে ফোন করে জানায় যে, অজ্ঞাত একটি মেয়ে অজ্ঞান অবস্থায় রাস্তার পাশে পড়ে আছে। করোনা সন্দেহে কেউ তার কাছে আসছে না এবং তাকে ধরছেনা।

৯৯৯ লাইনের মাধ্যমে মাধবদী থানা পুলিশ বিষয়টি জানার পর দ্রুত মাধবদী বাসস্ট্যান্ডে উপস্থিত হয়ে অজ্ঞাত মেয়েটিকে উদ্ধার করে মাধবদীস্থ প্রাইম হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে চিকিৎসার ব্যবস্থা গ্রহণ করেন।

পরবর্তীতে আরজিনা আক্তার সুস্থ হয়ে উঠলে মাধবদী থানা পুলিশ কিছু ঔষধপত্র ও হালকা খাবারসহ নিজ বাড়ী নরসিংদী জেলার রায়পুরা থানাধীন অলিপুরা গ্রামে তাকে পৌঁছে দেয়।

আরজিনা আক্তার নারায়ণগঞ্জ জেলা হতে তার নিজ বাড়ীর উদ্দেশ্য বাসে চড়ে  রওনা হলে পথিমধ্যে অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরবর্তীতে জ্ঞান হারিয়ে ফেললে করোনা সন্দেহে তাকে বাস থেকে নামিয়ে মাধবদী বাসস্ট্যান্ডে ফেলে রেখে বাসটি চলে যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button