নরসিংদীর খবর

নরসিংদীর সাহেপ্রতাব বায়তুন নূর জামে মসজিদ মতোয়ালী এড. আব্দুল আলীমকে বুঝিয়ে দিতে হাইকোর্টের নির্দেশ

শেয়ার করুনঃ

The Daily Narsingdir Baniবাণী রিপোর্ট : নরসিংদী সদর উপজেলার সাহেপ্রতাব বায়তুন নূর জামে মসজিদের মোতাওয়ালী এড. আব্দুল আলীমকে মসজিদ বুঝিয়ে না দিয়ে অবৈধভাবে মসজিদের আয়ের অর্থ ব্যায় ও মসজিদের দোকান ভাড়া প্রদান না করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। অবৈধ অনুপ্রবেশকারীরা মোতাওয়ালীকে নানাভাবে হয়রানী করাসহ প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে বলেও অভিযোগ রয়েছে।

অভিযোগে জানা যায়, সাহেপ্রতাব গ্রামের মৃত হাবিবুল্লাহর সরকারের পুত্র মো: খবির উদ্দিন সরকার ২০১০ ইং সালের ২ আগস্ট আর এস ৫৪ নং বাগহাটা মৌজাস্থিত আর এস ৭৪২ নং (আরএস খারিজা ৫১৯/১ নং) প্রজাই ক্ষতিয়ান ভূক্ত আর এস ১০১২ নং দাগে সিএন্ডবি রোড সংলগ্ন ২.৫০ শতাংশ জমি ওয়াকফ নামা দলিলে বায়তুন নূর জামে মসজিদের নামে দান করেন। অতপর উক্ত ভূমিতে তিন তলা একটি জামে মসজিদ নির্মাণ করত: জুম্মাসহ সকল নামাজ আদায় করে যাচ্ছে স্থানীয় ও এ মহাসড়কে চলাচল কারী লোকজন।

সম্প্রতি মসজিদের মোতাওয়ালী মো: খবির উদ্দিন সরকার মৃত্যুবরণ করলে তার পুত্র এ্যাডভোকেট আবদুল আলীম নিয়মানুযায়ী পিতা মৃত্যুর বিষটি বাংলাদেশ ওয়াকফ প্রশাসকের কার্যালয়কে অবহিত করেন। পরে বাংলাদেশ ওয়াকফ প্রশাসক (অতিরিক্ত সচিব) মো: শহীদুল ইসলাম ৯ জানুয়ারী ২০২০ইং তারিখে বাংলাদেশ ওয়াকফ অধ্যাদেশ ১৯৬২ এর ৪৪ ধারা মতে এ্যাডভোকেট আব্দুল আলীমকে ৩ বছর মেয়াদের জন্য অফিসিয়াল মোতাওয়ালী নিয়োগ করেন।

এরপর থেকে অবৈধ অনুপ্রবেশকারী দুষ্ট চক্রের চক্রান্ত শুরু হয়। তারা ওয়াকফ প্রশাসকের নিয়োগকৃত মোতওয়ালী এডভোকেট আবদুল আলীমকে কোনও ভাবেই মেনে নিতে পারছে না। তারা মসজিদের নীচতলায় নির্মিত দোকানের ভাড়া উঠিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। এছাড়াও তারা নিয়ম বহির্ভূত ভাবে মসজিদ কমিটি করার পায়তারা করছে। এসবের প্রতিকার চেয়ে ওয়াকফ প্রশাসক কর্তৃক নিয়োগকৃত মোতাওয়ালী এড. আবদুল আলীম কর্তৃপক্ষের নিকট আবেদন করেছেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ওয়াকফ সহকারী প্রশাসক মো: মিজানুর রহমান শিকদার শাহেপ্রতাব গ্রামের মৃত হানিফ মিয়ার পুত্র সুন্দর আলী, মৃত সোনা মিয়ার পুত্র হারুন মিয়া, আ: আলীর পুত্র মোকাররম হোসাইন ও মৃত মতি মিয়ার পুত্র বাদল মিয়াকে কারন দর্শানোর নোটিশ প্রদান করে।

এরপরও উল্লেখিত অবৈধ অনুপ্রবেশকারী ব্যাক্তিগণ পেশীশক্তি দেখিয়ে মসজিদটি তাহাদের দখলে রেখেছে। তাদের অত্যাচারে অতিষ্ট হয়ে বৈধ মোতাওয়ালী এড. আব্দুল আলীম বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের হাই কোর্ট ডিভিশনে একটি রীট পিটিশন দাখিল করে। উক্ত আবেদনের প্রেক্ষিতে বিচারপতি এম এনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো: মোস্তাফিজুর রহমান সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ ৩০ দিনের মধ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ওয়াকফ প্রশাসককে নির্দেশ দিয়ে আদেশ দেন। যাহা বাংলাদেশ ওয়াকফ প্রশাসক কার্যকর করবেন।

হাইকোর্টের এ আদেশের বলে বাংলাদেশ ওয়াকফ প্রশাসনের উপ প্রশাসক (প্রশা:) (উপ সচিব) এস এম হুমায়ুন কবির সরকার মহামান্য সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের রীট পিটিশন নং ২৩৬৮/২০২০এর ২৩/২/২০২০ তারিখের আদেশ কার্যকর করত: অবৈধ অনুপ্রবেশকারীদের উচ্ছেদ করে ওয়াকফ প্রশাসনের নিয়োগকৃত মোতাওয়ালীকে এস্টেটের দায়িত্ব বুঝিয়ে দেয়ার জন্য নরসিংদীর জেলা প্রশাসককে পত্র দ্বারা অনুরোধ করেছেন। যাহা বাস্তবায়নাধীন রয়েছে বলে জানা গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button