আন্তর্জাতিক

অষ্ট্রিয়ায় সাড়া জাগানো বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত, তরুন রাজনীতিবিদ মাহমুদুর রহমান নয়ন (পর্ব-৩)

মাশুক আহমেদ চৌধুরী, বিশেষ প্রতিনিধি, অষ্ট্রিয়াঃ

শেয়ার করুনঃ

The Daily Narsingdir Bani

বিদেশে বিভিন্ন সংগঠন অথবা মূলধারার রাজনীতিতে বাংলাদেশীদের অংশগ্রহণ এখন আর নুতন কিছু নয়। মেধা,যোগ্যতা আর সাহসিকতা নিয়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বাংলাদেশী বংশোদ্ভূতরা এখন সগৌরবে মহামান্নিত।

বিশেষ করে বিদেশে মূলধারার রাজনীতির কথা আসলেই ব্রিটেনে রুশনারা আলী, টিউলিপ রেজওয়ানা সিদ্দিক এবং রুপা হকের নাম প্রথমেই চলে আসে।তবে,এ অংশগ্রহণ যে শুধু ব্রিটেনেই বাড়ছে তা কিন্তু নয়। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের পার্লামেন্টে এখন বাংলাদেশী বংশোদ্ভূতরা সাহসীকতার সঙ্গে প্রতিনিধিত্ব করে চলেছেন।স্বপ্ন দেখছেন বহু তরুন রাজনীতিবিদ। তাদেরই একজন অস্ট্রিয়ান তরুন রাজনীতিবিদ মাহমুদুর রহমান নয়ন। মাত্র ২৩ বৎসর বয়সে এই বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত এই তরুন অষ্ট্রিয়ার মূলধারার রাজনীতিতে নিজের অবস্থান তৈরি করে নিয়েছেন অষ্ট্রিয়ার রাজনৈতিক অঙ্গনে।

২০১৭ইং সালের অক্টোবরে ব্রিটেনে মাস্টার্স করার সময় তরুন এই রাজনীতিকের ডাক পরে অষ্ট্রিয়ার জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অস্ট্রিয়ান পিপলস পার্টি থেকে নির্বাচন করার জন্য। অপ্রস্তুত মাহমুদুর রহমান নয়ন।বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যায়নের সময় এই ডাক নয়নের জন্য ছিল বিরাট চমক। ব্রিটেন থেকে নয়ন, তার বাবা অষ্ট্রিয়ার সিনিয়র সাংবাদিক, ইউরো সমাচার পত্রিকার সম্পাদক মাহবুবুর রহমান থেকে পরামর্শ চান। তার বাবা বিভিন্ন সংগঠনের সংগঠক,সাংবাদিক এবং সমাজকর্মী তাকে উৎসাহ দেন নির্বাচন করার জন্য।ওনার হা সূচক জবাবে অস্ট্রিয়ান পিপলস পার্টির সেন্ট্রাল নমিনেশন বোর্ড মাহমুদুর রহমান নয়ন কে চূড়ান্ত মনোনয়ন দেন। ব্রিটেন থেকে নয়ন চলে আসেন নির্বাচন করার জন্য। নয়নের মনোনয়নের খবরে অষ্ট্রিয়ায় বসবাসকারী বাংলাদেশীদের মাঝে আনন্দের বন্যা বয়ে যায়।

নির্বাচনী ক্যাম্পেইনের অংশ হিসেবে উনি একটি ইন্সিটিউটে তার অস্ট্রিয়ান জীবন সম্পর্কে বিস্তারিত তুলে ধরেন। সেখানে মুহুর্মুহ করতালির মধ্যে এক অস্ট্রিয়ান ছাত্র তাকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, তোমার মত যদি আমরা সবাই ডেডিকেটেড হতাম তাহলে আজ ইনট্রিগ্রেশন নিয়ে আমাদের আর আলোচনার প্রয়োজন হত না। সে দিনের ক্যাম্পেইনে অস্ট্রিয়ান পিপলস পার্টীর প্রধান ও অষ্ট্রিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রী উপস্থিত থাকলেও সবার দৃষ্টি ছিল নয়নের দিকে। (পত্রিকায় চোখ রাখুন পরবর্তী পর্বের জন্য)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button