নরসিংদী সদরনরসিংদীর খবরস্বাস্থ্যকথা

নরসিংদীতে জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির বিশেষ সভা

শেয়ার করুনঃ

The Daily Narsingdir Baniবাণী রিপোর্ট: নরসিংদীতে জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় সভাপতিত্ব করেন, নরসিংদী জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সৈয়দা ফারহানা কাউনাইন। ১৯ মার্চ জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত বিশেষ সভায় প্রতিরোধ কমিটির সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় নরসিংদী জেলার সামর্থ্য বৃদ্ধির বিষয়ে জরুরি সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে গৃহীত সিদ্ধান্তগুলোর মধ্যে রয়েছে-

প্রতি ওয়ার্ডে ওয়ার্ড কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। ওয়ার্ড কমিটি ইউনিয়ন পরিষদ এবং ইউনিয়ন পরিষদ উপজেলা প্রশাসনের নির্দেশে করোনা মোকাবেলায় কার্যক্রম গ্রহণ করবে।

বেলাব উপজেলায় কেবল করোনা আক্রান্তদের জন্য ১০০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতাল প্রস্তুত করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

প্রতি উপজেলায় ও ইউনিয়নে ব্যাপকভাবে জনসচেতনাম‚লক মাইকিং করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

বিদেশ ফেরত কেউ যদি স্বেচ্ছায় কোয়ারেন্টাইন এ যেতে না চায়, আইন প্রয়োগের মাধ্যমে কোয়ারেন্টাইনে বাধ্য করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এক্ষেত্রে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

সকল সরকারি দপ্তরের দাপ্তরিক ফেইসবুক পেইজের মাধ্যমে প্রচারণা চালানোর সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

প্রতিটি ফ্যাক্টরীতে আবশ্যিকভাবে থার্মাল স্ক্যানার স্থাপন এবং মালিকপক্ষকে শ্রমিকদের বিতরণের জন্য লিফলেটের নমুনা বিতরণসহ পত্র প্রেরণ করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

সচেতনতাম‚লক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় হতে প্রেরিত লিফলেটটি জেলা প্রশাসন, নরসিংদী হতে ছাপিয়ে বিভিন্ন দপ্তরে প্রেরণ করা হয়েছে এবং প্রয়োজনীয় সংখ্যক ছাপিয়ে অংশীজনদের মাঝে বিতরণের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। বিতরণকৃত লিফলেটটি অপরিবর্তিত রেখে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ছাপাতে পারবে মর্মে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। কেউ কোন পরিবর্তন করতে চাইলে প্রতিরোধ সেলের অনুমোদন সাপেক্ষে ছাপাতে পারবেন মর্মে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এছাড়া করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে তৃণম‚ল পর্যায়ে লিফলেট বিতরণের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে স্থানীয় ক্যাবল টিভিতে জোর প্রচারণা চালানোর সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সকল ধরণের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে। একটি কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে হটলাইন নম্বর চালু এবং জেলা পর্যায়ে প্রতিরোধ সেলের ০৪ জন সদস্যের মোবাইল নম্বর লিফলেটে দেয়ার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

সকল ধরণের ধর্মীয়, সামাজিক, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক সমাবেশ পুনরাদেশ না দেয়া পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট সকলকে আয়োজন না করার জন্য নির্দেশনা দেয়ার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

জনসমাগম বেশি হয় এরকম স্থান যেমন জেলা প্রশাসকের কার্যালয, উপজেলা ভ‚মি অফিস, আদালত, হাসপাতাল, মসজিদের অজুখানায়, সকল সরকারী/বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, অফিস, মিল কারখানার হাত ধোয়ার জন্য ক্ষারযুক্ত সাবান/হ্যান্ডওয়াশের ব্যবস্থাসহ স্যানিটারী সামগ্রী রাখার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

যারা ইতোমধ্যে ঠান্ডা, হাচি কাশিতে আক্রান্ত হয়েছেন, তাদের মসজিদে প্রবেশের প‚র্বে আবশ্যিকভাবে মাস্ক ব্যবহার করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

নরসিংদী জেলার ড্রিম হলিডে, হেরিটেজ, সোনাইমুড়ীর টেক, মনোহরদীর বৈশাখী বেলাসহ সকল পিকনিক স্পট এবং পার্কে পিকনিক সাময়িকভাবে বন্ধ করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

নরসিংদী জেলা কারাগারে ভিজিটর কন্ট্রোল করা এবং কারাগারের ভিতর কেউ সর্দি, কাশিতে আক্রান্ত হলে তাকে কোয়ারেন্টাইনে নেয়ার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ম‚ল্যে বেশি রাখলে সে বিষয়ে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

এছাড়া প্রাইভেট হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ কর্তৃক বিদেশ ফেরত রোগীদের ব্যাপারে সেল কে অবগত করা এবং ভিজিটর নিরুৎসাহিত করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

ইতোমধ্যে নরসিংদী শহরসহ বিভিন্ন উপজেলাগুলোতে প্রশাসনের নেতৃত্বে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে এ কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button