অপরাধনরসিংদীর খবরমনোহরদী

মনোহরদীতে ইভটিজিংয়ের ঘটনায় বখাটে আটক ১

শেয়ার করুনঃ

The Daily Narsingdir Baniবাণী রিপোর্ট: নরসিংদীর মনোহরদী উপজেলায় স্কুলছাত্রীকে ইভটিজিংয়ের ঘটনায় দ্বীন ইসলাম (১৭) নামে একজনকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার (১৪ মার্চ) দুপুরে রামপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে সালিস-বৈঠক থেকে তাকে আটক করা হয়। মনোহরদী উপজেলার পশ্চিম রামপুর তাতারকান্দা গ্রামের মাইন উদ্দিনের ছেলে অভিযুক্ত দ্বীন ইসলাম। ভুক্তভোগী ছাত্রী রামপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী। পার্শ্ববর্তী কটিয়াদী উপজেলার কাজিরচর গ্রামে তার বাড়ী।

ছাত্রীর পরিবার ও পুলিশ জানায়, গত ৮ মার্চ (রোববার) বিকেলে ছুটির পর বিদ্যালয় থেকে বাড়ী ফেরার পথে একটি বাঁশঝাড়ের কাছে নির্জন স্থানে পৌঁছলে পূর্ব থেকে ওঁৎ পেতে থাকা বখাটে দ্বীন ইসলাম, আতিক হাসান সাব্বির এবং সুজন স্কুলছাত্রীটির পথরোধ করে। অবস্থা বুঝে স্কুলছাত্রী পালানোর চেষ্টা করলে দ্বীন ইসলাম তার ওড়না ধরে টানাটানি করতে থাকে। এক পর্যায়ে তারা ছাত্রীটিকে বাঁশঝাড়ের ভিতর নেয়ার চেষ্টা করলে সে চিৎকার শুরু করে। এ সময় আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে বখাটেরা পালিয়ে যায়।

পরদিন ছাত্রীর বাবা-মা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নাজিম উদ্দিন এবং বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ও খিদিরপুর ইউপি চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান জামিলের কাছে এ ঘটনার বিচার দাবি করেন। ইউপি চেয়ারম্যান এবং বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বখাটেদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা না নিয়ে ঘটনাটি মিমাংসা করার চেষ্টা করতে থাকেন। শনিবার সকালে ইউপি চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে উভয় পক্ষকে নিয়ে রামপুর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে সালিশ দরবার বসানো হয়। খবর পেয়ে মনোহরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান সেখানে উপস্থিত হয়ে অভিযুক্ত দ্বীন ইসলামকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নাজিম উদ্দিন বলেন, ‘যেহেতু দুজনই আমার বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী তাই বিষয়টি মিমাংসার চেষ্টা করেছিলাম।’

খিদিরপুর ইউপি চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান জামিল বলেন, ‘অভিযোগ পাওয়ায় বিষয়টি জানার জন্য দুই পক্ষকেই বিদ্যালয়ে ডাকা হয়েছিল। তবে মিমাংসা দেয়ার জন্য আমরা বসিনি।’

মনোহরদী থানার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান বলেন, ‘ইভটিজিংয়ের ঘটনা মিমাংসা দেয়ার চেষ্টা চলছে এমন সংবাদ পেয়ে সালিস-বৈঠক থেকে অভিযুক্ত দ্বীন ইসলামকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button