নরসিংদী সদরনরসিংদীর খবরব্যবসা-বাণিজ্য

হাজীপুর কাঠবাজার ইজারার দরপত্র পাওয়া যায়নি নরসিংদী সদর ইউএনও অফিসে

The Daily Narsingdir Bani
বাণী রিপোর্ট : নোটিশ বোর্ডে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের এক মাস দশ দিন অতিবাহিত হলেও বাজার ইজারার দরপত্র (সিডিউল) ক্রয় করতে পারেনি ইজারাদারগণ। সোমবার ৯ই মার্চ অফিস চলাকালীন সময়ে দরপত্র ক্রয় করতে গিয়ে বিফল মনোরথ হয়ে ফিরে আসেন সিডিউলক্রেতাগণ।

পারফিউম ফ্যাক্টরি The Daily Narsingdir Bani

সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সিএ কাম ইউডি মো: নাইম দরপত্র ক্রেতাদেরকে বলেন, আমার কাছে নাই, এ অফিসে কে বিক্রি করেন তা আমার জানা নাই। এসিল্যান্ড অফিসে গিয়ে দেখেন, সেখানে পাবেন। পরে ক্রেতাগণ নরসিংদী সদর এসিল্যান্ড অফিসে গিয়ে জানতে পারেন সেখানে হাজীপুর কাঠ বাজারের ইজারার দরপত্র নেই। এসিল্যান্ড অফিসের নাজির দরপত্র ক্রেতাদের জানান, আমাদের এখানে কোন সিডিউল দেয়া হয়নি।

হাতি মার্কা সাবান হাতি মার্কা সাবান

নরসিংদী সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নোটিশ বোর্ড সূত্রে জানা যায়, হাজীপুর কাঠবাজারসহ উপজেলার বিভিন্ন বাজার ইজারার দরপত্র গ্রহণের তারিখ ৩০/১/২০ হতে ১০/৩/২০ পর্যন্ত। দরপত্র জমাদেয়ার তারিখ ১১/৩/২০। ইজারাদারগন জানান, সিডিউল কিনে তা পূরন করে, তার সাথে ব্যাংকের পে অর্ডার সংযুক্ত করতে ২/৩ দিন সময় প্রয়োজন হয়। অথচ ৯মার্চ অফিসে গিয়ে সিডিউল কিনতে না পারায় ইজারাদারগণ হতাশ।

ইজারাদারদের ধারণা সিএ কাম ইউডি রহস্যজনক কারণে দরপত্র ক্রয় করতে আসা লোকজনকে ফিরিয়ে দিয়েছে। তার সাথে বর্তমান ইজারাদারদের গোপন চুক্তি থাকতে পারে। অভিযোগ রয়েছে অখ্যাত কুখ্যাত পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দেয়ার কারণে ইজারার বিষয়ে সিডিউল ক্রেতাগণ সময়মত জানতে পারেনি। এতে বিভিন্ন বাজারের অধিক দরপত্র বিক্রি হয়নি। গত বছর দরপত্র ক্রয় করতে আসা লোকজনকে তিনি ফিরিয়ে দিয়েছেন। এবারও একই কাজ করছেন তিনি। এ ব্যপারে সিডিউল ক্রেতাগণ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও জেলা প্রশাসকের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button