অপরাধনরসিংদী সদরনরসিংদীর খবর

মাদক ব্যবসায়ী দীলিপ সাহা গ্রেফতার এড়াতে পারলেও তার মোটরসাইকেল উদ্ধার করেছে ডিবি পুলিশ

শেয়ার করুনঃ

The Daily Narsingdir Baniবাণী রিপোর্ট: মাদক ব্যবসায়ী দীপক সাহার ঘনিষ্ঠ সহযোগি মাদক সম্রাট দীলিপ সাহা গ্রেফতার এড়াতে পারলেও তার ব্যবহৃত চোরাই মোটরসাইকেলটি পরিত্যক্ত অবস্থায় উদ্ধার করেছে নরসিংদী ডিবি পুলিশ। গতকাল বুধবার নরসিংদী শহরের পশ্চিমকান্দাপাড়া এলাকায় রাস্তার পাশ থেকে দীলিপেরে ব্যবহৃত এ্যাপাচি আরটিআর ১৫০ সিসি মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করা হয়। নরসিংদী জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ইন্সপেক্টর বিপ্লব কুমার দত্তের নেতৃত্বে ইন্সপেক্টর রুপন কুমার সরকার পিপিএম, এসআই তাপস কান্তি রায় ও সঙ্গীয় ফোর্স এলাকায় মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করেন।
স্থানীয়রা জানায়, পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক সম্রাট দীলিপ সাহা তার ব্যবহৃত মোটরসাইকেলটি রেখে দ্রুত পালিয়ে যায়। দীলিপ এ মোটরসাইকেল দিয়ে চলাফেরা করতো ও মাদক ব্যবসা চালাত।
পুলিশ জানায়, কালো রংয়ের মোটরসাইকেলটি পরিত্যাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। ডিবি অনুসন্ধানকালে জানতে পারে, ঢাকা মিরপুর এলাকার জনৈক তরিকুল ইসলামের নামে মোটরসাইকেলটির রেজিষ্ট্রেশন রয়েছে। ঘটনাস্থলে মোটরসাইকেলটির কোন দাবীদার না থাকায় ডিবি পুলিশ তা উদ্ধার করেছে। দিলীপ সাহা এই চোরাই মোটরসাইকেলটি দীর্ঘদিন যাবত মাদক ব্যবসার কাজে ব্যবহার করে আসছে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছে।

The Daily Narsingdir Baniএর আগে গত ২২ জানুয়ারি নরসিংদী শহরের পশ্চিম কান্দাপাড়া মহল্লার অনিল ঘোষের মালিকানাধীন বাংলাদেশ মিষ্টান্ন ভান্ডারের সামনে থেকে মাদক ব্যবসায়ী ইফতেখার আলম সুমন ওরুফে কান কাটা সুমন ওরুফে দ্বৈয়ব সুমনের দেহ তল্লাসী করে ২০০ পিছ ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। এসময় ডিবি পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে তার সহযোগী মাদক ব্যবসায়ী সুমন সাহা ওরুফে চিড়া সুমন ও দীলিপ সাহা একটি মোটরসাইকেল রেখে পালিয়ে যায়। পুলিশ তাদের মাদক ব্যবসার কাজে ব্যবহৃত এপাচি মোটরসাইকেল যার রেজি: নং কিশোরগঞ্জ-ল-১১-১৯১৪ উদ্ধার করে। এ ব্যপারে ডিবি পুলিশ বাদী হয়ে ইফতেখার আলম সুমন, সুমন সাহা ও দীলিপ সাহাকে আসামী করে মাদক আইনে নরসিংদী সদর মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং-৪৩, তাং-২২/১/২০২০। ইফতেখার আলম সুমন এর বিরুদ্ধে নরসিংদী মডেল থানা, ভৈরব ও আখাউড়া রেলওয়ে থানায় ৫টি মামলা রয়েছে।
অপরদিকে গত ২৭ জানুয়ারি নরসিংদী শহরের পশ্চিম কান্দাপাড়া এলাকার দীপক সাহার বাড়ীর ভাড়াটিয়া মাদক ব্যবসায়ী সুমন সাহা ওরুফে চিড়া সুমনকে তার বাড়ী থেকে ২০ বোতল ফেন্সিডিলসহ গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তার সহযোগী দীলিপ সাহা পালিয়ে যায়। গ্রেফতারকৃত সুমন সাহা পুলিশকে জানায়, দীলিপ সাহা মাদকের অর্থের যোগানদাতা। এ ব্যপারে সুমন সাহা ও দীলিপ সাহাকে আসামী করে ডিবি পুলিশ নরসিংদী সদর মডেল থানায় মামলা দায়ের করে। যার মামলা নং-৬১, তাং-২৮/০১/২০২০।
স্থানীরা জানায়, নরসিংদী জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক দীপক সাহা মাদকের গডফাদার। তার মাদক ব্যবসার ঘনিষ্ট সহযোগী দীলিপ সাহা ও সুমন সাহা। দীলিপ সাহা নরসিংদী জেলা পূজা উদ্যাপন কমিটির সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক ও সুমন সাহা এ কমিটির সদস্য।
অতি সম্প্রতি নরসিংদী জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের অকার্যকর কমিটির সাধারণ সম্পাদক দীপক সাহার অফিসের সামনের ড্রেন পরিষ্কার করার সময় নরসিংদী পৌর সভার পরিচ্ছন্ন কর্মীরা প্রায় ৪ হাজার খালি ফেন্সিডিলের বোতল উদ্ধার করে। এ ঘটনায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঝড় উঠে। বোতলের ছবি সম্বলিত মন্তব্য শহরবাসীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে। এলাকাবাসীর মন্তব্য অন্য কোন স্থানে নয় দীপক সাহার অফিসের সামনের ড্রেনে বিশাল পরিমাণ ফেন্সিডিলের বোতলের রহস্য বের করতে হবে। এখানে মাদকের অবৈধ ব্যবহারসহ মাদক ব্যবসা চলছে। দীপক সাহাকে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে ফেন্সিডিল বোতলের রহস্য বেড়িয়ে আসবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button