খেলাধূলানরসিংদীর খবরপলাশবিনোদন

পলাশে প্রধান অতিথি না করায় ফুটবল টুর্ণামেন্ট পণ্ড করে দিয়েছে ইউপি চেয়ারম্যান

শেয়ার করুনঃ

The Daily Narsingdir Bani

বাণী রিপোর্ট: পলাশে প্রধান অতিথি না করায় ফুটবল টুর্ণামেন্ট পণ্ড করে দিয়েছে ইউপি চেয়ারম্যান ও তার বাহিনী। এলাকাবাসীকে বঞ্চিত করা হয়েছে খেলার আনন্দ থেকে। ১৪ ফেব্রুয়ারী শুক্রবার নরসিংদীর পলাশ উপজেলার গজারিয়া ইউনিয়নে যুব সমাজের উদ্যোগে আয়োজিত বঙ্গবন্ধু ফুটবল টুর্ণামেন্টের ফাইনাল খেলায় প্রধান অতিথি না করায় খেলাটি পণ্ড (বন্ধ) করে দিলেন ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বদরুজ্জামান ভূইয়া।

শুক্রবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) বিকালে গজারিয়া ইউনিয়নের নোয়াকান্দা উত্তর পূর্বপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে ফুটবল টুর্ণামেন্টটির ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। গত কয়েকদিন ধরে আয়োজকরা টুর্ণামেন্টটির ফাইনাল খেলার প্রস্তুতি নিয়ে আসছিলেন। এরমধ্যে খেলায় প্রধান অতিথি করা হয় উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আল-মুজাহিদ হোসেন তুষারকে। এছাড়া খেলার উদ্বোধক করা হয় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কারিউল্লাহ সরকারকে।

এদিকে ফাইনাল খেলায় ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যানকে প্রধান অতিথি না করায় চেয়ারম্যান ও তার বাহিনী ক্ষিপ্ত হয়ে খেলা শুরু হওয়ার আগেই মাঠ থেকে অতিথিদের চেয়ার টেবিল ও গোলবার তুলে নিয়ে যায়। এতে খেলার মাঠে উত্তেজনা বিরাজ করলে একপর্যায়ে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

বঙ্গবন্ধু ফুটবল মিনি বার টিভি কাপ টুর্ণামেন্টের আয়োজক হাবিবুর রহমান হাবিব জানান, শুক্রবার বিকাল ৪ টার দিকে টুর্ণামেন্টটির ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। দুপুরে ইউপি চেয়ারম্যান বদুরুজ্জামান ও তার লোকজন এসে খেলার মাঠে চেয়ার টেবিল সরিয়ে নেয় এবং সবাইকে বলে দেন এখানে কোনো খেলা হবে না। যারা খেলা চালাবে তাদের শায়েস্তা করা হবে। চেয়ারম্যানকে অতিথি না করায় তিনি খেলাটি বন্ধ করে দেয় বলে জানান এ আয়োজক।

খেলার আরেক আয়োজক রফিকুল ইসলাম ইফতি জানান, খেলায় প্রধান অতিথি আল-মুজাহিদ হোসেন তুষার দীর্ঘদিন ধরে টুর্ণামেন্টটির পরিচালনায় আমাদের সহযোগীতা করে আসছিলেন। তাই ফাইনাল খেলায় তাকে প্রধান অতিথি করা হয়।

এ ব্যাপারে গজারিয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান বদরুজ্জামান ভূইয়ার মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও চেয়ারম্যান, আমাকে না জানিয়ে খেলার আয়োজন করা হয়। এতে গন্ডগোলের আশঙ্কা করে খেলাটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button