অর্থনীতিনরসিংদীর খবরপলাশ

নরসিংদীর ঘোড়াশাল রেলওয়ে স্টেশন এলাকা থেকে চার শতাধিক অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

The Daily Narsingdir Bani

পারফিউম ফ্যাক্টরি The Daily Narsingdir Bani

বাণী রিপোর্ট: নরসিংদীর পলাশ উপজেলার ঘোড়াশাল স্টেশন এলাকায় রেলওয়ের জায়গায় গড়ে ওঠা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে অভিযান চালিয়েছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। বুধবার (১৫ জানুয়ারি) দুইদিন ব্যাপি অভিযানের প্রথম দিনে সকাল ১০ টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত এই উচ্ছেদ অভিযান চলে । এতে ঘোড়াশাল রেলস্টেশন এলাকার প্রায় চার শতাধিক অবৈধ দোকান ও স্থাপনা ভ্যাকু দিয়ে গুড়িয়ে দেয়া হয়।

The Daily Narsingdir Bani

উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন ঢাকা বিভাগীয় ডিভিশনাল রেলওয়ে ব্যাবস্থাপক এ এম সালাউদ্দিন ও রেলওয়ে এস্টেট অফিসার মোঃ নজরুল ইসলাম। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বিভাগীয় ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ার আরিফ হোসেন, ঘোড়াশাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক জহিরুল আলম।

হাতি মার্কা সাবান হাতি মার্কা সাবান

এর আগে ২০১৬-২০১৭ সালেও একই স্থানে রেলওয়ের জমির উপর অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছিল। পরে পুনরায় এসব স্থানে অবৈধ স্থাপনা গড়ে ওঠে।

রেলওয়ে এস্টেট অফিসার মো. নজরুল ইসলাম জানান, ঘোড়াশাল টান রেলওয়ে স্টেশন থেকে নামা রেলওয়ে স্টেশন পর্যন্ত এবং ঘোড়াশাল বাজার এলাকায় রেলওয়ের প্রায় ৬ একর জমি দখলে নিয়েছে অবৈধ দখলদারগণ। এসব জায়গায় গড়ে উঠা ৮২০ টি দোকান ও স্থাপনা নির্মাণ করে তারা অবৈধভাবে ব্যবস্যা করে আসছে। সেই অবৈধ স্থাপনাগুলোতে দুই দিন ব্যাপি উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হবে। পর্যায়ক্রমে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে। সম্পুর্ণ অভিযানের শেষে পুরো জায়গাটা মাস্টার প্ল্যান এর আওতায় নিয়ে আসা হবে এবং নিয়ম অনুযায়ী লিজ দেয়া হবে।

এদিকে অভিযানের বিষয়ে ব্যবসায়ীরা জানান, রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের অভিযানে তারা সর্বশান্ত হয়ে পড়েছে। বিকল্প ব্যবস্থা না করে এভাবে উচ্ছেদ করায় পরিবার নিয়ে পথে বসা ছাড়া আর কোনও উপায় থাকবে না তাদের। তাদের অনেকেই জানান অফিসের সাথে যোগাযোগ করেই দোকানপাট নির্মাণ করা হয়েছে। বছর শেষে অফিসে গিয়ে টাকা দিয়ে আসতে হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button